রাজধানীর ২৫টি স্থানে বসবে পশুর হাট


দেশে চলছে করোনার বর্বরতা। দেশজুড়ে প্রতিদিন ৩ হাজারের বেশি মানুষকে গ্রাস করছে করোনার মরণ থাবা। করোনার এই প্রকোপের মধ্যেই এবার কোরবানি ঈদ উপলক্ষে রাজধানীর ২৫ টি স্থানে বসবে কোরবানি পশুর হাট। অন্যান্যবারের মত শহরের মধ্যে না রেখে লোকালয় থেকে দূরে হাট বসানো না হলে স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হবে বলে অভিমত দিয়েছেন নগরবাসী ও পরিবেশবিদরা।

প্রতিবছরই বিভিন্ন শর্ত জুড়ে দিয়ে রাজধানীর ভেতরে অস্থায়ী পশুর হাট বসে। নির্ধারিত স্থানে হাটের গণ্ডি সীমাবদ্ধ না থাকা, পরিচ্ছন্নতায় উদাসীনতা, নির্দিষ্ট সময়ে অবকাঠামা না সরানোসহ নানা অনিয়ম তৈরি হয়। সাধারণ নিয়মের পাশাপাশি গতবছর ডেঙ্গু জ্বরের আতঙ্কের কারণে বেঁধে দেয়া বিধি নিষেধও উপেক্ষিত ছিল বেশিরভাগ হাটে।

বিগত সময়ের অভিজ্ঞতার কথা উল্লেখ করে নগরবাসী ও পরিবেশবিদরা বলছেন- কয়েকবছর যাবৎ শহরের বাইরে পশুর হাট বসানোর দাবি উপেক্ষিত থাকলেও, এবার করোনা সংক্রমণের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে হবে।ডা. সাব্বির আহমেদ খান বলেন, ‘এই জায়গাগুলোতে যদি স্পেস মেইনটেইন করে যদি পশুগুলোকে রাখা যায় তাহলে ভালো হবে।’

স্থপতি নগরবিদ ইকবাল হাবীব বলেন, ‘প্রান্তিক খোলা জায়গায় যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো করে হাট বসানো উচিত। শহর অভ্যন্তরে অবশ্যই এই জাতীয় জায়গা ব্যবহার পরিত্যাজ্য ঘোষণা করা উচিত।’ তবে, বাজারের সংখ্যা কমানো কিংবা জায়গা পরিবর্তনের বিষয়টি আমলে নেয়নি কোন কর্তৃপক্ষই।

এবার খেলার মাঠ ছাড় পেলেও রাস্তা ও লোকালয় রয়েছে প্রস্তাবিত হাটগুলোতে। ঢাকা উত্তরে গত বছর ৯টি থাকলেও এবার আরেকটি অস্থায়ী হাট বাড়ছে, গাবতলীর স্থায়ী হাটটিসহ এবার ১০টি জায়গায় ইজারার প্রস্তুতি চলছে। দক্ষিণ সিটি করপোরেশরনে গত বছরের মত এবারও ১৪টি পশুর হাট ইজারা দেয়া হবে।


Best bangla site

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *