গোড়া থেকে উপড়ে ফেলা হোক, চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পর মন্তব্য কঙ্গনার


দেশ জুড়ে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে টিকট’ক-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপ। কেন্দ্রীয় সরকারের ওই সিদ্ধান্তের পর থেকে গোটা দেশ জুড়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। তবে চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সরকারি সিদ্ধান্তের ভূয়ষী প্রশংসা করলেন কঙ্গনা রানাউত।

তিনি বলেন, সরকার থেকে চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধন্ত একেবারে যু’ক্তিযু’ক্ত। ওই সমস্ত অ্যাপ বন্ধ না করা হলে, ভা’রতের অর্থনীতির উপর ক্রমশ থাবা বসাতে শুরু করার চেষ্টা শুরু করেছিল চিন।

শুধু লাদাখ নয়, অরুনাচল প্রদেশ, সিকিমের উপরও চিনের নজর রয়েছে। আর চিনের এই চাহিদা শেষ তো হবেই না, উলটে দিনের পর দিন ধরে বেড়েই চলেছে। তাই এই সমস্যার গোড়ায় গিয়ে তা সমূলে উতপাটন করতে হবে বলেও আহ্বান জানান কঙ্গনা।

​সম্প্রতি ভা’রতীয় সে’নাদের বি’রুদ্ধে চিনের নির্লজ্জ আক্রমণের প্রতিবাদ করেন কঙ্গনা। তিনি বলেন, লাদাখে যেভাবে ভা’রতীয় জমি দখলের চেষ্টা করছে চিন, তার বি’রুদ্ধে এবার দেশের প্রত্যেক মানুষকে গর্জে উঠতে হবে। একজোট হতে হবে সবাইকে।

মানসিকভাবে দাঁড়াতে হবে ভা’রতীয় সে’নার পাশে। সেই কারণে দেশের প্রত্যেকটি মানুষকে বর্জন করতে হবে চিনা পণ্য। চিনের যে সব কোম্পানি ভা’রতে ব্যবসা ফেঁদে বসে রয়েছে, তাদের বি’রুদ্ধে একজোট হতে হবে সবাই। এভাবেই লাদাখে ভা’রতীয় সে’নার উপর চিনের হা’মলার তীব্র বিরোধিতা করেন কঙ্গনা রানাউত।


Best bangla site

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *